এম আর বাঙুর হাসপাতালে আক্রান্ত পুলিশ, ছিঁড়ল উর্দি

0
456

আবারও আক্রান্ত পুলিশ, এবার খাশ কলকাতায়। রবিবার শহরের এম আর বাঙুর হাসপাতালে রোগীর আত্মীয় পরিজনদের হাতে আক্রান্ত হলেন পাঁচ পুলিশকর্মী। অভিযোগ, বেধড়ক মারধোর সহ ছিঁড়ে দেওয়া হয়েছে ওই পুলিশকর্মীদের উর্দি। উল্লেখ্য শুক্রবার রাতেই সন্দেশখালিতে দুষ্কৃতীদের গুলিতে নিহত হয়েছেন এক পুলিশকর্মী। রবিবারের ঘটনার সূত্রপাত এদিন দুপুর দেড়টা নাগাদ। নিউ আলিপুরের টেম্পল রোডের তিনজন জ্বর নিয়ে এম আর বাঙুর হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। এদিন তাঁদের ছুটি দেওয়ার কথা ছিল। সেই মতো তাঁদের আত্মীয় পরিজনরা হাসপাতালের ভিতর ঢুকতে গেলে বাঁধা দেয় নিরাপত্তারক্ষীরা। শুরু হয় বচসা। এরপরই মারমুখী হয়ে ওঠে ওই দলটি। পুলিশ ও হাসপাতালের নিরাপত্তারক্ষীদের অভিযোগ, বাইরে থেকে আরও ৩০-৩৫ জনের একটি দলকে ডাকা হয় হাসপাতাল চত্বরে। তাঁরাই মূলত তান্ডব চালিয়েছে এম আর বাঙুর চত্বরে। নিরাপত্তারক্ষীদের বাঁচাতে গিয়ে বেধড়ক মার খেয়েছেন হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির কর্মীরাও। এরপরই বিশাল বাহিনী নিয়ে এম আর বাঙুর হাসপাতালে পৌঁছে যান কলকাতা পুলিশের দক্ষিণ পূর্ব ডিভিশনের আধিকারিকরা। লাঠিচার্জ করেই হটিয়ে দেওয়া হয় মারমুখী আত্মীয় পরিজনদের। পুলিশ গ্রেফতার করেছে দুজনকে। বাকিদেরও চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। তবে খাস কলকাতায় এভাবে পুলিশের মার খাওয়ার ঘটনায় প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে তাঁদের দক্ষতা নিয়েই।