বিজেপির যুবমোর্চার মিছিল আটকাল পুলিশ

0
157

৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের সমর্থনে রাজ্যজুড়ে বিজেপির যুব মোর্চার তেরঙ্গাযাত্রা নিয়ে উত্তাল রাজ্য। বিভিন্ন এলাকায় তেরঙ্গাযাত্রা শুরুর আগেই আটকে দিল পুলিশ। উত্তর ২৪ পরগণার ঘোলা থানার সোদপুর মুরাগাছা মোড়ে যুবমোর্চার মিছিল আটকায় পুলিশ। এরপরই পুলিশকর্মীদের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়ে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। এরপর এদের হটাতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। বেশ কয়েকজন বিজেপি যুবকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। একইভাবে বৃহস্পতিবার সকালে মিছিল শুরুর আগেই হাওড়া জেলায় বিভিন্ন এলাকায় বিজেপির নেতা-কর্মীদের আটক করেছে পুলিশ। এমনটাই দাবি হাওড়া জেলা বিজেপি নেতাদের। উত্তর হাওড়া, মধ্য হাওড়া এবং বালি এলাকার বিভিন্ন বিজেপির কর্মকর্তাদের আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। গোলাবাড়ি থানাতেও বেশ কয়েকজনকে আটকে রাখা হয়েছে, ফলে গোলাবাড়ি থানার সামনে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা।

মালদা জেলায় ইংরেজবাজার থানা এলাকার নেতাজি মোড়ে বিজেপির তেরঙ্গাযাত্রা আটকায় পুলিশ। যুব বিজেপি কর্মীদের বাইক মিছিলের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন মালদা উত্তরের বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্ম্মু এবং জেলা বিজেপির সভাপতি গোবিন্দ মণ্ডল। পুলিশের দাবি, অনুমতি ছাড়াই বাইক মিছিল বের করে বিজেপি, তাই আটকে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, বিজেপি পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে ইংরেজবাজার থানায় আগাম জানিয়ে এই বাইক মিছিল করা হচ্ছিল। অন্যায়ভাবে পুলিশ তাদের মিছিল আটকেছে। এই নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয়। এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। সকাল ৯টা থেকে প্রায় ১১টা পর্যন্ত অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে ইংরেজবাজার থানা এলাকার নেতাজি মোড় সংলগ্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। ফলে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয় ওই রাস্তায়। অসুস্থ হয়ে পড়েন দুই বিজেপি কর্মী। তবে ১১টা নাগাদ পুলিশ ব্যারিকেড সরিয়ে নিলে বিজেপির বাইক মিছিল এগিয়ে যায়।