রাফাল নিয়ে অস্বস্তি বাড়ল মোদির

0
580

এনডিএ জমানা থেকে মোটেই কম দামে রাফাল কেনার চুক্তি হয়নি। প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তিনজন সিনিয়র অফিসার এই দাবি করেছিলেন। বুধবার হিন্দু সংবাদপত্রে প্রকাশিত আরও একটি খবরে জানা যাচ্ছে, ভারতের তরফে যে সাতজন রাফাল নিয়ে দরকষাকষি করেছিলেন, এই তিনজন সেই দলেই ছিলেন। এতদিন মোদি সরকারের দাবি ছিল, তাদের আমলে রাফালের বিমান যে দরে কেনার চুক্তি হয়েছে, তা ইউপিএ আমলের চুক্তির থেকে কম। সরকারের এই দাবিতে আপত্তি জানিয়েছিলেন যুগ্ম সচিব পর্যায়ের অফিসার ব্যয় সংক্রান্ত পরামর্শদাতা এম পি সিং, বিমানবাহিনীর ফিন্যান্সিয়াল ম্যানেজার এ আর সুলে এবং যুগ্ম সচিব অ্যাকউইজিশন ম্যানেজার রাজীব ভার্মা। ফ্রান্সের সঙ্গে দর চূড়ান্ত হওয়ার একমাস পর এবং ২০১৬ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর চুক্তি হওয়ার তিনমাস আগে আটপাতার এই নোট দেন তাঁরা। তাতে বলা হয়েছে, রাফালের জন্য যে চূড়ান্ত দর দেওয়া হচ্ছে তা কোনওমতেই ভালো দর বলা যায় না। ৩৬টি রাফালের প্রথম ১৮টি সরবরাহের জন্য যে সময়সীমা দেওয়া হয়েছে, তা আগের চুক্তির তুলনায় অনেক শ্লথ। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধির দাবি, সরকারের দাবি মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। সংসদ এবং সুপ্রিম কোর্টে সরকার অসত্য বলেছে। অনেক বেশি দামে রাফাল বিমান কেনার চুক্তি মোদি করেছেন শুধু অনিল আম্বানিকে সুবিধা পাইয়ে দিতেই।