সূর্যের পথে রওনা দিল পার্কার

0
32

শুক্রবার থেকেই চলছিল চূড়ান্ত প্রস্তুতি। অবশেষ রবিবার এল সেই ঐতিহাসিক মুহূর্ত। পৃথিবী ডেল্টা ফোর হেভি রকেটে চড়ে সূর্যের উদ্দেশ পাড়ি দিল পার্কার। ভারতীয় সময়ের হিসেবে দুপুর ১টা। সূর্য রহস্য সন্ধানে পার্কার পাড়ি দিল পৃথিবী ছেড়ে। ফ্লোরিডার কেপ ক্যানাভেরাল থেকে উৎক্ষপণ করা হয় এটিকে। লক্ষ্যস্থল সূর্যের করোনার বাইরের অঞ্চল। বলা হচ্ছে সাম্প্রতিক কালে নাসার সবচেয়ে বড় সাফল্য হতে চলেছে এটি। মিশনের নাম ‘পার্কার সোলার প্রোব। শনিবার রওনা দেওয়ার কথা থাকলেও, শেষ মুহূর্তে কিছু যান্ত্রিক সমস্যার কারণে পিছিয়ে যায় রকেটের উৎক্ষেপন। এর মাধ্যমে সূর্যের রহস্য উন্মোচনের চেষ্টা করবে নাসা। এটি সূর্যের করোনা অঞ্চলে প্রবেশ করবে। সূর্যের করোনার এত উত্তাপের কারণ কী, অনুসন্ধান করবে। সেইসঙ্গে সৌরঝড়ের রহস্যও খোঁজার চেষ্টা করবে। মহাকাশযান পার্কার প্রায় ২৫০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রা সহ্য করতে পারে। এ কারণে যানটিতে সাড়ে চার ইঞ্চির তাপ নিরোধক লাগানো হয়েছে। বাইরের তীব্র উত্তাপ সত্ত্বেও প্রোবের ভেতরের তাপমাত্রা থাকবে ৮৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট। ধাপে ধাপে গতি বাড়ানো হবে পার্কারের। এক সময় গতি হবে ঘণ্টায় চার লাখ ৩০ হাজার মাইল। এটি মানুষের তৈরি সবচেয়ে দ্রুতগতির যান। বিভিন্ন কক্ষপথে ঘুড়ে দেড় মাস পরে পৌঁছবে শুক্রের কক্ষে। তার পরে আবার পাড়ি। সব হিসেব মিলে গেলে ২০২৪ সালে পৌঁছাবে সূর্যে।