একা হাতে অর্থনীতি ধ্বংস করেছেন মোদি, কংগ্রেসের তোপ

0
98

ভারতের শত্রুরা নয়, নরেন্দ্র মোদি একা হাতেই ধ্বংস করেছেন দেশের অর্থনীতি। তবুও তিনি নিজেকে দেশপ্রেমিক বলে দাবি করছেন তিনি। দেশের আর্থিক উন্নতির হার বিজেপির নয়া হিসেবেই ৪ শতাংশ, যা আসলে ২.৫ শতাংশ। শনিবার দিল্লির রামলীলা ময়দানে বেহাল অর্থনীতি ও নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে কংগ্রেসের ভারত বাঁচাও সমাবেশে কেন্দ্র সরকারকে তীব্র আক্রমণ করে রাহুল গান্ধি বলেন, তাঁর নাম রাহুল গান্ধি, রাহুল সাভারকর নয়। ভারতে ধর্ষণ হয় এই সত্য বলে তিনি কখনই ক্ষমা চাইবেন না। বরং দেশের সর্বনাশ করার জন্য মোদজি আর অমিত শাহকেই ক্ষমা চাইতে হবে। সোনিয়া গান্ধির বক্তব্য, দেশকে বিভাজিত করার অপচেষ্টা রুখতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সবাইকে এখন সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সেই সময় এসে গিয়েছে। অসমকে ভয়ঙ্কর দিকে ঠেলে দিয়েছে সরকার। অর্থনীতি থেকে দৃষ্টি ঘোরাতে মানুষের মধ্যে লড়াই লাগিয়ে দিচ্ছে। প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বলেন, আগে দেশের উন্নতিতে দুনিয়ার সবাই তাকিয়ে থাকত। এখন ৬ বছরে লোকের কাজ নেই, বন্ধ হচ্ছে কলকারখানা। নাগরিকত্ব আইনের মতো অসাংবিধানিক আইন এনেছে সরকার। এখনও চুপ করে থাকলে নষ্ট হবে সংবিধানের আদর্শ। সমাবেশে বক্তৃতা করেন পি চিদম্বরম, শচিন পাইলট, কমলনাথ, জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, ভূপিন্দর সিং হুদার মতো নেতারা বক্তৃতা করেন। ছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংও।