ইলিশে রপ্তানির নিষেধ তুলছে বাংলাদেশ

0
40

সুখবর। ইলিশ মাছ রপ্তানির ওপর নিষেধ তুলে নিচ্ছে বাংলাদেশ। এবার বৈধভাবেই বাংলাদেশ থেকে রপ্তানি হবে ইলিশ। বাংলাদেশের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণচন্দ্র চন্দ্র সোমবার জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ইলিশের উত্পাদন বেড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারেও চাহিদা রয়েছে। তাই ইলিশের কিছুটা রপ্তানির কথা ভাবা হয়েছে। ২০১২ সালের ১ আগস্ট থেকে ইলিশসহ সব মাছ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রক। পরে ওই বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর ইলিশ ছাড়া অন্য সব মাছ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়। তিনি বলেন, ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ইলিশের উৎপাদন ছিল ৩ দশমিক ৯৫ লাখ টন। আর ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে এর পরিমাণ ছিল ৫ লাখ টন। সরকারি হিসেবে বাংলাদেশে প্রতিবছর যে পরিমাণ মাছ পাওয়া যায়, তার ১১ শতাংশ আসে ইলিশ থেকে। দেশের জিডিপিতে ইলিশের অবদান ১ শতাংশের মত।
জেলে বিচারাধীন বন্দির সংখ্যা বাড়ছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের হিসেবে বিচারাধীন বন্দির সংখ্যা ২০১৬ সালে ছিল ২ লাখ ৯৩ হাজার। ২০১৫ সালে তা ছিল ২ লাখ ৮২ হাজার। গত ১৬ বছরে এই সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ১ লাখ। সবথেকে বেশি বিচারাধীন বন্দি চারটি রাজ্য উত্তরপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ এবং পশিচমবঙ্গে। এই চারটি রাজ্যেই বিচারাধীন বন্দির মোট সংখ্যার ৫৩ ভাগ রয়েছে। সবার উপরে উত্তরপ্রদেশ।