মহারাষ্ট্র থেকে দেহ এনে বিপাকে আত্মীয়স্বজন

0
2854

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে এই সন্দেহে কোথাও মৃতদেহ সৎকার করতে দিচ্ছেন না এলাকার লোকজন। যেখানেই দেহ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে সেখানেই প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে মৃতের পরিবারের লোকজনদের। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি থানার ঘাঁটুয়া গ্রামের বাসিন্দা অক্ষয় রাউল কর্মসূত্রে সস্ত্রীক মহারাষ্ট্রের পুনায় থাকতেন। গত রবিবার বছর তেইশের ওই যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘটে। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি পরিবারের লোকজন একটি গাড়ি ভাড়া করে ওই মৃতদেহ বৃহস্পতিবার গ্রামে নিয়ে এলে গ্রামবাসীরা সৎকার করতে বাধা দেন। নিরুপায় হয়ে মৃতের পরিবারের লোকজন মৃতদেহটি সৎকারের জন্যে কাঁথি শহরের একটি শ্মশানে নিয়ে গেলে চরম বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয় তাদের। মৃতের পরিবারের লোকজনের কথায় পারিবারিক অশান্তির জেরে ওই যুবক গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে, করোনায় সংক্রমিত হয়ে নয়। কিন্তু কে শোনে কার কথা ! কোনও কথা শুনতেই নারাজ এলাকাবাসী। সকলেরই সন্দেহ, ওই যুবক হয়তো করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছে। বাধ্য হয়ে সৎকারের জন্যে মৃতদেহ নিয়ে হন্যে হয়ে ঘুরছে পরিবারের লোকজন।