খুন বিজেপি কর্মী, উত্তপ্ত কাঁকিনাড়া

0
2293

ভোট পরবর্তী হিংসা থামার নাম নেই কাঁকিনাড়ায়। রবিবার রাতে বোমা ছুঁড়ে ও গুলি করে খুন করা হল চন্দন সাউ নামে এক বিজেপি কর্মীকে। এরপর থেকেই অশান্ত ভাটপাড়ার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাঁটাডাঙ্গা এলাকা। যদিও চন্দনের মোবাইলের কললিস্ট দেখে পুলিস দুজনকে গ্রেফতার করেছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণ অনুযায়ী, রবিবার রাত ১০টা নাগাদ নিজের বাইকে বাড়ি ফিরছিলেন পেশায় ব্যবসায়ী চন্দন সাউ। কাঁটাডাঙ্গা শতদল মাঠ সংলগ্ন বাড়ির কাছেই একদল দুষ্কৃতী হামলা চালায় চন্দনের ওপর। প্রথমে বোমা মারা হয়, পরে মৃত্যু নিশ্চিত করতে কাছ থেকে গুলি করে পালিয়ে যায় দুস্কৃতিরা। বিজেপির অভিযোগ এই খুনের পিছনে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা রয়েছে। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, ভাটপাড়া পুরসভার ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডে একটি পার্টি অফিসের দখল নিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে গোলমাল চলছিল চন্দনের। ওই ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলরের সঙ্গে বচসাও হয় চন্দনের। এরপরই এই খুনের ঘটনা। সোমবার সকাল থেকেই বিশাল পুলিসবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে কাঁটাডাঙ্গা এলাকায়। জারি রয়েছে ১৪৪ ধারা। তবুও দফায় দফায় চলছে বিক্ষোভ। ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং সরাসরি তৃণমূল কংগ্রেসকেই দায়ী করেছেন চন্দন সাউ খুনের ঘটনায়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও এদিন বারাণসী থেকে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বাংলায় বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলার ঘটনা নিয়ে।