যেখানে ইচ্ছা যাব, অনুমতির প্রয়োজন নেই, দাবি রাজ্যপালের

0
670

সমান্তরাল প্রশাসন চালানোর অভিযোগ উড়িয়ে দিলেন রাজ্যপাল। সোমবার উত্তরবঙ্গে এক অনুষ্ঠানে গিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে জগদীপ ধনকর বলেন, রাজ্যপালের কাজ নিয়ে মিথ্যা ও তথ্য ছাড়া কথা বলা হচ্ছে। বলা হচ্ছে আমি নাকি সমান্তরাল প্রশাসন চালাচ্ছি, তাহলে রাস্তায় মুখ্যমন্ত্রীর বদলে আমার কাটআউট থাকত। অথচ এখানে আসার সময় দেখলাম রাস্তায় রাস্তায় মুখ্যমন্ত্রীর কাটআউটে ছেয়ে গিয়েছে। ভুল ও তথ্যহীন বার্তা দেওয়া হচ্ছে বলেও এদিন অভিযোগ করেন রাজ্যপাল। একই সঙ্গে চা শ্রমিকদের সমস্যার প্রসঙ্গও তোলেন তিনি। চা-শ্রমিকদের সমস্যা সমাধানে হাই-পাওয়ার কমিটি গঠনের পরামর্শ দিলেন রাজ্যপাল। শিলিগুড়িতে জগদীপ ধনকরকে স্মারকলিপি দেয় চা-শ্রমিকদের সংগঠন। সে সূত্রেই তিনি বলেন, দীর্ঘমেয়াদি সমাধান সূত্রে বের করতে হবে। কেন্দ্র ও রাজ্যের প্রতিনিধিদের নিয়েই গড়া হোক এই হাই পাওয়ার কমিটি। পাশাপাশি তিনি এদিন বলেন, চা-শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরিষেবা, রেশন দিতে হবে। হেলিকপ্টার নিয়ে রাজ্যের কয়েকজন মন্ত্রীর তীর্যক মন্তব্যেরও জবাব দিয়েছেন তিনি। এদিন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় বলেন, পশ্চিমবঙ্গের সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে কাজ করতে গেলে রাজ্যের কোণায় কোণায় যেতে হবে। এর জন্য রাজ্যপালের কারও অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন নেই। রাজ্যপাল হিসেবে নিজের কর্তব্য থেকে সরব না। যেখানে প্রয়োজন মনে করব যাব, শিলিগুড়িতে সাংবাদিক বৈঠকে মন্তব্য জগদীপ ধনকরের। এদিন শিলিগুড়িতে এসএসবি-এর অষ্টম পুলিশ আর্চারি চ্যাম্পিয়নশিপের উদ্বোধন করতে এসেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। রাঙ্গাপানি এলাকায় এই প্রতিযোগিতায় দেশের বিভিন্ন রাজ্য থেকে প্রতিযোগীরা অংশ নিয়েছেন।