চিনে কপাল খুলছে ভারতের ফিল্মের

0
49

আমেরিকার সঙ্গে বাণিজ্য যুদ্ধে কপাল খুলতে চলেছে ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির। হলিউডের বদলে বলিউডের ফিল্মের ওপর নির্ভর করতে বলছেন চিনা বিশেষজ্ঞরা। চিনের আকাদমি অফ সোশাল সায়েন্সেসের গবেষক তিয়ান গুয়াংকিয়াং জানাচ্ছেন, মার্কিন মুলুকের সিনেমায় চিনা দর্শকদের একঘেঁয়েমি এসে গিয়েছে। ভারতীয় ফিল্মের সম্ভাবনা খুব বেশি। ২০১৭ সালে চিনে বক্স অফিসের রোজগার ছিল ৫৮,০০০ কোটি। তার আগের বছরের তুলনায় তা ১৩.৪৫% বেশি। আমেরিকার পরে চিনই দ্বিতীয় বৃহত্তম ফিল্ম বাজার। চিনে সিনেমা দেখানো হয় ৪১ হাজার পর্দায়, ভারতের দ্বিগুণ। চিনা বক্স অফিসের ৪৬% বিদেশি ফিল্মের। যে দশটি ছবি চিনে হিট হয়েছিল, তার পাঁচটি কেবল চিনে তৈরি। বলিউডের সিক্রেট সুপারস্টার, বজরঙ্গি ভাইজান চুটিয়ে ব্যবসা করেছে। তবে বাজিমাত করেছে আমির খানের দঙ্গল। আয় করেছে ১৩০০ কোটি টাকা, যা রেকর্ড। গত তিনবছরে সব ভারতীয় ফিল্ম যা আয় করেছে একা দঙ্গলই করেছে তার অর্ধেক। গত তিনবছরে আমেরিকা যেখানে ১৫৬ ফিল্ম চিনে পাঠিয়েছে, সেখানে ভারত থেকে গিয়েছে ৫টি। এখনকার নিয়ম অনুযায়ী ভারত বছরে পাঁচটি ফিল্ম চিনে পাঠাতে পারে। চিনা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চিন-মার্কিন বাণিজ্যযুদ্ধের ফায়দা নেওয়ার এটাই সুযোগ ভারতের কাছে।