আধুনিক গান্ধির পদযাত্রা

0
41

সাড়ে ৯ হাজার কিলোমিটার। দিল্লি থেকে জেনিভা পদযাত্রার উদ্যোগ নিয়েছেন এক ভারতীয়। তাঁপ এই পদযাত্রার নাম বিচার ও শান্তির জন্য পদযাত্রা। আগামি ২ অক্টোবর দিল্লি থেকে এই হন্টন শুরু করবেন রাজাগোপাল পি ভি। ২০২০ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর পৌঁছবেন জেনিভায়। ২ অক্টোবর মহাত্মা গান্ধির ১৫০ তম জন্মদিবস। বিশ্বজোড়া সংঘাতের পরিবেশে তা এবার আরও গুরুত্বপূর্ণ।
রাজাগোপালের বয়স ৭০ বছর। পেশায় ইঞ্জনিয়ার। ভূমিহীন কৃষকদের দাবি নিয়ে আন্দোলনের কর্মী তিনি। তাঁর পরিকল্পনা, পাকিস্তান, ইরান, তুরস্ক হয়ে তিনি পৌঁছবেন শান্তির শহর জেনিভায়। যাত্রাপথে তিনি বোঝাবেন সংঘাত আর পরিবেশ নিধনের বিপদ।
রাজাগোপালের কথায়, “যদি জমি আর জল কেড়ে নেওয়া হয়, তাহলে সমাজে অশান্তির সৃষ্টি হবে। সেই অশান্তি থেকে সংঘাত, আরও বড় সংঘাত জন্ম নেবে। সংঘাতদীর্ণ দুনিয়া এখন শান্তি চাইছে। তাই শান্তির কথা বলতেই তিনি বেরোবেন।
তাঁর সহ পদযাত্রীদের জন্য ভিসা যোগাড় করাটা যে মুশকিল হবে, তা তিনি জানেন। সেক্ষেত্রে মুম্বই থেকে একটা নৌকা নিয়ে তিনি রওনা দেবেন গ্রিসের উদ্দেশে। সেখান থেকে শুরু করবেন হাঁটা। তাঁকে এখনই অনেকে আধুনিক গান্ধি বলে ডাকেন। তাতে তিনি বিব্রত। তাঁর আশা, দলাই লামা আর বারাক ওবামা তাঁর পাশে দাঁড়াবেন।
আপাতত যাত্রাশুরুর আগে রাজাগোপাল দুনিয়া ঘুরে তাঁর যাত্রার জন্য সমর্থন যোগাড় করবেন। আশা করছেন, পৃথিবীর হাজার হাজার মানুষ নানা প্রান্ত থেকে যোগ দেবেন তাঁর শান্তি পদযাত্রায়। জেনিভায় পৌঁছে তাঁরা এক সপ্তাহ ধরে শান্তি ও অহিংসা নিয়ে আলোচান করবেন।