জাদুটোনা, তন্ত্রসাধনায় ভর করে নির্বাচনে বাজিমাত

0
276

নির্বাচন আসন্ন কর্নাটকে। ক্ষমতা দখলে কতটা মরিয়া হয়ে উঠেছে রাজনৈতিক দলগুলি তার প্রমাণ পাওয়া গেল আরও একবার। এত প্রচার, এত প্রতিশ্রুতি, কিন্তু তবুও নিশ্চিন্তে থাকার উপায় নেই। তাই এবার সব ছেড়েছুঁড়ে জাদুটোনা ও তন্ত্রসাধনায় ভর করে নির্বাচনে বাজিমাত করতে উঠেপড়ে লেগেছেন কেউ কেউ। একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রকাশিত রিপোর্টে সম্প্রতি বিষয়টি নজরে এসেছে। অভিযোগের তির অবশ্য বেশি বিজেপির দিকে। কয়েকটি ক্ষেত্রে অবশ্য কংগ্রেস নেতাদের নামও জড়িয়ে পড়েছে। রিপোর্টিতে আরও বলা হয়েছে, এটাই প্রথমবার নয়। এর আগেও এধরনের অভিযোগ উঠেছিল। ২০১১ সালে কর্নাটকের ক্ষমতায় ছিল বিজেপি। সেসময় মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুউরাপ্পার বিরুদ্ধেও তন্ত্রসাধনার অভিযোগ উঠেছিল। শোনা যায়, তিনি তাঁর শত্রুদের দমন করতে তন্ত্রসাধকের পরামর্শে নিজের ঘরে তিনদিন পুরোপুরি দিগম্বর অবস্থায় ঘুমিয়ে ছিলেন। এমনকি, নদীতে গিয়ে ১২ বার সূর্যপ্রণাম করেছিলেন ওই একই অবস্থায়। এখানেও শেষ নয়, নির্বাচনে জিততে কয়েক জায়গায় গাধা বলি দেওয়ার খবরও মিলেছে। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবগৌড়ার বিরুদ্ধেও কালো বিদ্যায় অংশগ্রহণের অভিযোগ উঠেছিল। এমনিতেই কর্নাটকে এই ধরনের বহু নজির রয়েছে। বাধ্য হয়েই গতবছর সেরাজ্যের বিধানসভায় তন্ত্রসাধনার নামে অমানবিক বলি দেওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। রাজনৈতিক দলের নেতারাই যদি গৌরী লঙ্কেশ, কালবুর্গির নিজের রাজ্যে এভাবে কুসংস্কারে আচ্ছন্ন থাকেন তাহলে সাধারণ মানুষের কী হবে? প্রশ্ন তুলেছেন যুক্তিবাদী মানুষেরা।