পঁচাত্তরে বুড়ো

0
32

ইতালিতে শুধুমাত্র ৭৫ বছরের বেশি বয়সীরাই বৃদ্ধ হবেন। সেদেশের গবেষকরা জানাচ্ছেন, ইউরোপের অন্য দেশের তুলনায় বেশি বাঁচেন ইতালির মানুষ।
ফ্লোরেন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ধক্যবিদ্যার গবেষক নিকোলো মার্চিওন্নি জানান, আজকের ৬৫ বছরের মানুষের শারীরিক ও চিন্তার ক্ষমতা ৩০ বছর আগেকার ৪০-৪৫ বছরের কোনও মানুষের মতোই। ৭৫ বছরের মানুষের ক্ষমতা ১৯৮০ সালের ৫৫ বছরের লোকের মতো।
তাই বয়সের নতুন মাপকাঠিতে ইতালিতে বৃদ্ধ হওয়ার নয়া সংজ্ঞা ও মাপকাঠি ঠিক করতে হবে। বিংশ শতকে ৫০ পেরোলেই বার্ধক্যে পা দিতেন ইতালিয়ানরা। তারপরের কুড়ি বছরে বেঁচে থাকা বয়স বেড়ে গিয়েছে। গডে় মহিলাদের মৃত্যুর বয়স ৮৫ আর পুরুষদের ৮০ বছর ৬ মাস।
শুধু যে বেশিদিন তাঁরা বঁাচছেন তাই নয়, বেশি বয়সে রীতিমতো সুস্থও থাকছেন। ইতালির বৃদ্ধ প্রতি দশজন বৃদ্ধের ন জনই সুস্থ। প্রতি তিনজনের একজন ব্যায়াম করেন। দশজনের আটজনই জীবন নিয়ে সন্তুষ্ট।
গবেষণা বলছে, ৭৫ থেকে ৮৪ বছরের মধ্যে বয়স্করা বজায় রাখছেন তাঁদের স্বাধীনতা। তাঁদের প্রতি দশজনের সাতজন নিজেদের নাতিনাতনিকে দেখভাল করে থাকেন। আটজন নিয়মিত আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে দেখা করেন। সপ্তাহে অন্তত একবার নিজেদের বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে দেখা করেন দশজনে চারজন।
ইতালিতে জন্মহার কমছে। বাড়ছে বেঁচে থাকার বয়স। এক-পঞ্চমাংসই এখন ৬৫ বছরের বেশি বয়সী। ৭ শতাংশের বয়স ৮০ বছরের বেশি।