অনাস্থার মাঝেই পুরকর্মীদের গেট আটকে বিক্ষোভ ভাটপাড়ায়

0
367

অনাস্থা নিয়ে চরম উত্তেজনা ভাটপাড়া পুরসভায়। শুক্রবার তৃণমূল কংগ্রেসের ১৮ জন কাউন্সিলরের সই সম্বলিত চিঠি জমা দিতে পুরসভায় আসেন প্রতিনিধি দল। কিন্তু পুরসভার গেট আটকে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন পুরসভার প্রাক্তv কর্মীরা। প্রায় ৫০০ জন প্রাক্তণ কর্মী পেনশনের দাবিতে কয়েকদিন ধরেই ধরনা দিচ্ছিলেন পুরসভার সামনে। পাশাপাশি বকেয়া বেতন সহ বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়ে বর্তমান পুরকর্মীরাও বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন। ফলে এদিন চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দেয় পুরসভা চত্বরে। তবে পুলিশের হস্তক্ষেপে বেশ কিছুক্ষণ পর ৫ জন কাউন্সিলরের প্রতিনিধি দল পুরসভার ভিতরে ঢোকেন। তাঁরাই পুরসভার এক্সিকিউটিভ অফিসারের দফতরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের চিঠি জমা দিয়ে আসেন। ভাটপাড়া পুরসভার ইও তন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, অনাস্থার চিঠি পেয়েছি। এরপর আইন অনুযায়ী ১৫ দিনের মধ্যে বোর্ড মিটিং ডাকবেন চেয়ারম্যান।

ভাটপাড়া পুরসভার অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের দাবি দুমাস ধরে তাঁরা পেনশন পাচ্ছেন না। বর্তমান কর্মীদের একাংশের দাবি তাঁদেরও কয়েকমাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। সেই দাবি অবিলম্বে মেটানোর আশ্বাস না দিলে তাঁরা আরও বৃহত্তর আন্দোলনে যাবেন। এই প্রসঙ্গে চেয়ারম্যান সৌরভ সিং জানিয়েছেন, পুরসভা রাজ্য সরকারের কাছ থেকে ৪২ কোটি টাকা পায়। ৬ বার আবেদন করেও পাওনা টাকা হাতে পায়নি ভাটপাড়া পুরসভা। আমরা সেই টাকা পেলেই সমস্ত কর্মীদের বকেয়া মিটিয়ে দেব। অনাস্থা নিয়ে চেয়ারম্যানের মন্তব্য, অনাস্থার ভোটের দিন আসল ম্যাজিক হবে। ভোটাভুটির দিন বিজেপির দিকেই ভোট দেবেন অনাস্থা আনা বেশিরভাগ কাউন্সিলর। অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার রাতেই ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর মিলি দত্তের বাড়ির সামনে বোমাবাজি হয় বলে অভিযোগ। তাঁর বাড়ির গ্রিলে দুটো বোমা ছোঁড়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন মিলি দত্ত।