নোটবন্দির পর জাল নোটের রমরমা

0
37

নোটবন্দির পর দ্বিগুণ নকল টাকা উদ্ধার হয়েছে। ২০১৭ সালে দেশে ২৮ কোটি ১ ০ লাখ জাল নোট পাওয়া গিয়েছে। তার আগের বছর তা ছিল ১৫ কোটি ৯০ লাখ টাকার। জাতীয় ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর হিসেবে এই তথ্য মিলেছে। নোটবন্দির সময় দাবি করা হয়েছিল, জাল নোট কমে যাবে। বন্ধ হবে জঙ্গিদের অর্থসাহায্য এবং কালো টাকা। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, যে পরিমাণ জাল নোট ২০১৭ সালে বাজেয়াপ্ত হয়েছে, তার মধ্যে ১৪ কোটি ৯০ লাখই নোটবন্দির পর জারি করা ২০০০ টাকার। রেকর্ড বলছে, ২০১৭ সালে দেশের ব্যাঙ্কগুলি সবথেকে বেশি জাল নোট পেয়েছে। আগের বছরের তুলনায় তা ৪৮০ শতাংশ বেশি। রেকর্ড আরও জানাচ্ছে, গুজরাতে সবথেকে বেশি জাল নোট বাজেয়াপ্ত হয়েছে, ৯ কোটি টাকারও বেশি। তারপরই দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ। পশ্চিমবঙ্গে উদ্ধার হয়েছে ১ কোটি ৯০ লাখ টাকার জাল নোট। সবথেকে বেশি জাল নোটের জন্য এফআইআর হয়েছে উত্তরপ্রদেশে।