এত জঞ্জাল এভারেস্টে!

0
166

এভারেস্ট থেকে সাফ করা হল তিন হাজার কেজি বর্জ্য। নেপালি নববর্ষ ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া এভারেস্ট পরিচ্ছন্নতা অভিযানের আওতায় এ বর্জ্য অপসারণ করা হয়। ৪৫ দিনের এ কর্মসূচিতে মোট ১০ হাজার কেজি বর্জ্য অপসারণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ থেকে এখন পর্যন্ত তিন হাজার কেজি বর্জ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে দুই হাজার কেজি বর্জ্য ওখালডুঙ্গায় এবং এক হাজার কেজি কাঠমাণ্ডুতে পাঠানো হয়েছে। বর্জ্য পরিবহনে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হয়েছে।
এই কর্মসূচির আওতায় বেস ক্যাম্প থেকে মোট পাঁচ হাজার কেজি বর্জ্য অপসারণ করা হবে। দুই হাজার কেজি অপসারিত হবে সাউথ কোল অঞ্চল থেকে। আর ক্যাম্প টু ও ক্যাম্প থ্রি থেকে অপসারিত হবে তিন হাজার কেজি বর্জ্য। বেস ক্যাম্প পরিষ্কারের সময় চারটি মরদেহ মিলেছে। এই সাফাই কর্মসূচির জন্য বাজেট ধরা হয়েছে দুই কোটি ৩০ লাখ নেপালি টাকা।
চলতি মরসুমে ৫০০ জন বিদেশি পর্বতারোহী এবং এক হাজার সহায়তাকারী এভারেস্টের ক্যাম্পগুলো পরিদর্শন করবে বলে পর্যটন সংস্থার ধারণা। প্রতিবছর শয়ে শয়ে পর্বতারোহী, শেরপা ও ভারবাহক এভারেস্টে যায়। তাদের ফেলে আসা অক্সিজেনের সিলিন্ডার, খাবারের উচ্ছিষ্ট, বিয়ারের বোতল, মলের মতো বর্জ্যে দূষিত হয় এভারেস্ট।
২০১৪ সালে সরকার ঘোষণা করেছিল, প্রত্যেক পর্বতারোহীকে কমপক্ষে আট কেজি বর্জ্য নিয়ে নামতে হবে। এ পরিমাণ নির্ধারিত হয়েছে একজন আরোহীর সম্ভাব্য বর্জ্যের হিসাব থেকে।