আইনস্টাইনের চিঠি

0
24

আইনস্টাইনের হাতে লেখা চিঠি এবার নিলামে উঠছে। দাম উঠেছে ১৫ লাখ ডলার। নিলামদার ক্রিস্টি জানিয়েছে, এই চিঠিতে আইনস্টাইন ঈশ্বর, ধর্ম নিয়ে তাঁর ভাবনাচিন্তার কথা লিখেছেন। মৃত্যুর একবছর আগে ১৯৫৫ সালে জার্মান ভাষায় এই চিঠি আইনস্টাইন আমেরিকার নিউ জার্সির প্রিন্সটন থেকে লিখেছেন জার্মান দার্শনিক দার্শনিক এরিক গুটকিন্ডের কাছে।

“আমার কাছে ভগবান শব্দটার অর্থ মানুষের দুর্বলতার প্রকাশ আর তা থেকেই উৎপন্ন। বাইবেল প্রাচীন এক সংগ্রহ তা হলেও আদিম এক কাহিনিমালা। কোনও ব্যাখ্যা, তা সে যতই সূক্ষ্ম হোক, এর কোনও হেরফের করতে পারবে না।”

৪ ডিসেম্বর এই দেড়পাতার চিঠিটি নিলামে উঠবে। ক্রিস্টির অনুমান, দর উঠবে ১০ থেকে ১৫ লক্ষ ডলার। এর আগে ২০০৮ সালে এই চিঠিটি একজন কিনেছিলেন ৪ লাখ ৪ হাজার ডলারে। ক্রিস্টির বিশেষজ্ঞ পিটার ক্লার্টনেট জানাচ্ছেন, বিজ্ঞান বনাম ধর্মের বিতর্কে এটা নিশ্চিতভাবেই একটা যুগান্তকারী বিবৃতি।

ধর্মনিরপেক্ষ আসকেনাজি ইহুদির ছেলে আইনস্টাইনকে হিটালার ক্ষমতায় আসার পর জার্মানি ছেড়ে পালাতে হয়েছিল। ইহুদি ধর্মকেও ছেড়ে কথা বলেননি এই বিশ্ববন্দিত বিজ্ঞানী। তিনি লিখছেন,”আমার কাছে খাঁটি ইহুদি ধর্ম অন্য ধর্মের মতোই আদিম কুসংস্কারে ভরা। খুশিমনে যে সমাজের একজন আমি, যাদের মানসিকতায় আমি গভীরভাবে প্রোথিত, আমার কাছে অন্য মানুষের কাছ থেকে তাদের মর্যাদার কোনও তফাৎ নেই। আমার অভিজ্ঞতায় ইহুদিরা অন্য মানবগোষ্ঠীর থেকে আলাদা কিছু নয়, ক্ষমতার অভাবে চরম বাড়াবাড়ি থেকে তারা সুরক্ষিত হলেও। না হলে কী করে ধরে নেব ইহুদি বলে আমি ধন্য।”

গত অক্টোবরে সুখী থাকার তত্ত্ব নিয়ে আইনস্টাইনের লেখা একটা নোট জেরুসালেমে নিলামে বিক্রি হয়েছে। ক্রিস্টি ২০০২ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে আইনস্টাইনের লেখা ১৯৩৯ সালের চিঠি ২ কোটি ডলারে বিক্র করেছিল। তাতে তিনি সতর্ক করেছিলেন, জার্মানি আণবিক বোমা বানানোর চেষ্টা করছে।