ড্রোন ক্যামেরায় নজরদারি উত্তর ২৪ পরগণা জেলা প্রশাসনের

0
186

রাজ্যের অন্যতম করোনা স্পর্শকাতর এলাকা বা হটস্পট হল উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। তাই জেলা প্রশাসন অতিসক্রিয় হয়ে উঠেছে লকডাউন সফল করতে। নির্দিষ্ট কয়েকটি এলাকা চিহ্নিত করে চলছে পুলিশি নজরদারি। পাশাপাশি জেলার সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চলছে নাকা চেকিং। মঙ্গলবার দুপুরে উত্তর ২৪ পরগনার জেলাশাসক চৈতালি চক্রবর্তী ও বারাসত পুলিশ জেলার সুপার অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় সহ জেলার গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিকরা রাস্তায় নেমেছিলেন। জেলা সদর বারাসতের বিভিন্ন জনবহুল এলাকা পরিদর্শন করেন তাঁরা। এছাড়াও লোকডাউন পরিস্থিতি আরও ভালোভাবে পর্যবেক্ষণের জন্য ড্রোন ক্যামেরার সাহায্য নেয় পুলিশ-প্রশাসন। উঁচু থেকে বিভিন্ন এলাকার ভিডিও করে পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তারা বোঝার চেষ্টা করেন কোথায় কোথায় লোকডাউন ভাঙা হচ্ছে। জেলাশাসক চৈতালি চক্রবর্তী জানান, ‘এই জেলার মানুষ পুলিশ প্রশাসনকে যথেষ্ট সাহায্য করায় লোকডাউন সফল হচ্ছে। পুলিশও তৎপরতা দেখিয়ে কাজ করছে’। জেলা পুলিশ সুপার অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বলেন, অযথা মানুষজন যাতে রাস্তায় না বের হয়, তার জন্য প্রচার চালানো হচ্ছে। পাশাপাশি যে সমস্ত এলাকায় বিশেষ স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত সেই এলাকায় বাড়তি টহলদাড়ি চলছে। এখনও পর্যন্ত লোকডাউন ভাঙার দায়ে ২৫০ জনেরও বেশি মানুষকে গ্রেফতার করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ। পাশাপাশি মধ্যমগ্রাম ও বারাসত থানা এলাকায় চারটি হেল্পলাইন চালু করেছে পুলিশ। এই নম্বরের মাধ্যমেই স্থানীয় মানুষদের প্রয়োজনীয় রসদ পৌঁছে দিচ্ছে পুলিশ প্রশাসনের কর্মীরা।