আয়কর নিয়ে বঙ্গজননীর ধরনাকে কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

0
446

দুর্গাপুজো কমিটিগুলিকে আয়কর দফতরের নোটিশ পাঠানোর ঘটনার প্রতিবাদে কলকাতার সুবোধ মল্লিক স্কোয়ারে অবস্থান বিক্ষোভ করলেন তৃণমূলের শাখা সংগঠন বঙ্গজননী। এবার তাঁদের পালটা দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এ বিষয়ে তাঁর মন্তব্য, বঙ্গজননীরা বঙ্গের সম্মান রক্ষার জন্য কিছু করুক, দুর্গাপুজো অন্যরা দেখে নেবেন। বিগত সব দুর্গাপুজোতেই চিট ফান্ডের টাকা খেটেছে বলে সরাসরি অভিযোগ জানিয়ে দিলীপবাবুর দাবি, গনেশ পুজো বা রামনবমীর অনুষ্ঠান চিট ফান্ডের টাকা দিয়ে হয়নি। তাই আয়করের ডাক পেয়েই তৃণমূল নেতাদের মধ্যে হইহই পড়ে গিয়েছে। দুর্গাপুজোর এই বিপুল খরচ কোথা থেকে এল, কারা এত টাকা চাঁদা দেন এসব সাধারণ মানুষের জানার প্রয়োজন আছে। সেই টাকার হিসাব চাইতেই আয়কর দফতর নোটিশ দিয়েছে বলেই দাবি বিজেপির রাজ্য সভাপতির। আয়করের ডাকে কেউ যায়নি এখনও, তার আগেই হইহই করার কী আছে? ফলে স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে ভয় আসলে কোথায়।


মঙ্গলবার নদিয়ার চাকদায় ও উত্তর ২৪ পরগণার বারাসতে সদস্যতা অভিযানে অংশ নিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। সেখানেও তিনি প্রশান্ত কিশোরকে নিয়ে তৃণমূল নেত্রীকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। তাঁর কথায়, এই রাজ্যে সরকার এখন প্রশান্ত কিশোরই চালাচ্ছেন, বিভিন্ন সরকারি দফতরের থেকে অভিযোগ আসছে সেখানেও নাক গলাচ্ছেন তৃণমূল নেত্রীর এই পরামর্শদাতা। এরপরই তিনি বলেন, উনি বিজেপির কাছ থেকে রাজনৈতিক কৌশল শিখেই আজ ভোট কৌশলী হয়েছেন। বিজেপির দেখানো পথেই প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলকে পরামর্শ দিচ্ছে বাড়ি বাড়ি যাওয়ার। তৃণমূল তাঁর পিছনে সাড়ে আটশো কোটি টাকা খরচ করেছে যখন কিছু তো সাফল্য পাবে বলেও কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ। তবে বিজেপি লোকসভা ভোটের মতো একই পথে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।