বর্ষবরণে ঢাকায় মঙ্গল শোভাযাত্রা

0
74

মানুষ ভজলে সোনার মানুষ হবি। লালনের গানের কথায় এই স্লোগান সামনে রেখে ১৪২৫ সনের বাংলা নববর্ষের মঙ্গল শোভাযাত্রা। শনিবার সকালে শোভাযাত্রা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের সামনে থেকে শুরু হয়। শেষ হয় চারুকলার সামনে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় ছিলেন বাংলাদেশের সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন স্তরের মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নিয়েছেন। কঠোর নিরাপত্তার চাদরে মোড়া রয়েছে পুরো এলাকা। ঢাক-ঢোল আর তরুণ-তরুণীদের হই-হুল্লোড় আর আনন্দ উল্লাস মেতেছে পুরো শোভাযাত্রা। ২০১৬ বছরের নভেম্বরে ইউনেস্কোর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে ১৯৮৯ সাল থেকে শুরু হয়েছিল মঙ্গল শোভাযাত্রা। তখন এর নাম ছিল বর্ষবরণ আনন্দ শোভাযাত্রা। ১৯৯৬ সালে এর নাম হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। এবারের আজ শোভাযাত্রার শুরুতে ছিল একটি বড় উজ্জ্বল সূর্য ও তারপরে আছে মাছ, বক, টিয়া পাখি, হাতি, ষাঁড়। হাজারো মানুষ বিভিন্ন রঙে সেজে শোভাযাত্রায় অংশ নিচ্ছেন। নানা আকৃতির রং ও মুখোশ রয়েছে শোভাযাত্রায়। এছাড়া রয়েছে রঙিন মা পাখি ও ছানার প্রতীকী কাঠামো।