বিজয় উৎসবে চটুল নাচের আসর, অভিযুক্ত তৃণমূলের উপপ্রধান

0
20131

লোকসভা নির্বাচনে দল ভালো ফল করেছে কিন্তু দলীয় নির্দেশে বিজয় মিছিল করা যাবেনা। তাই দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার ভাঙড় বিধানসভার নিমকুড়য়া গ্রামের তৃমমূল কর্মীরা বিচিত্রা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। অভিযোগ, সেই অনুষ্ঠানে কলকাতা থেকে বার ডান্সার নিয়ে এসে চটুল নাচের আসর বসিয়েছিলেন স্থানীয় পঞ্চায়েতের উপ প্রধান আনসার মোল্লা। সোমবার রাতের ওই অনুষ্ঠানে স্বল্প বসনা তরুণীরা অশ্লীল অঙ্গিভঙ্গি করে নাচেন হিন্দি গানের তালে। তাঁদের সঙ্গে ঘনিষ্ট অবস্থায় নাচতে শুরু করেন স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরাও। সেই নাচের ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পরতেই শুরু হয় বিতর্ক। যদিও অভিযোগ পেয়ে কাশীপুর থানার পুলিস গিয়ে ওই অনুষ্ঠান বন্ধ করে দেয়। সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিও ফুটেজের সত্যতা যাচাই করেনি সিএন।
ওই অনুষ্ঠান আয়োজনে কাশীপুর থানা থেকে কোনও অনুমতি নেওয়া ছিলনা বলেই জানা গিয়েছে। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, মেয়েরা প্রায় উলঙ্গ হয়ে নাচছিল, এরসঙ্গে বিশ্রী অঙ্গিভঙ্গি করছিলেন তাঁরা। দর্শকাশনে স্কুলছাত্ররাও ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এবিষয়ে মুখ খুলতে চাননি স্থানীয় ব্লক সভাপতি ওহিদুল ইসলাম। অন্যদিকে ভাঙড়ের তৃণমূল নেতা আরাবুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছেন, ‘এর সঙ্গে দলের কেউ জড়িত নয়, তবে ঘটনাটি খুব নিন্দাজনক। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ করছি।’ দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অবশ্য কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি। তবে নির্দিষ্ট অভিযোগ পেয়ে কাশীপুর থানার পুলিস শ্যামল ঘোষ নামে এক উদ্যোক্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিসের দাবি, বাকি অভিযুক্তদের ধরতে তল্লাসি শুরু করেছে তাঁরা। মূল অভিযুক্ত তৃণমূলের উপ প্রধান আনসার মোল্লার ফোন বন্ধ।