মূর্তি ভাঙায় থানায় জোড়া অভিযোগ দায়ের

0
630

মঙ্গলবারের অশান্তির পরে বুধবার সকাল থেকে থমথমে বিদ্যাসাগর কলেজ চত্বর। নিরাপত্তার কারণে মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিস বাহিনী। বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা ও কলেজে ভাঙচুরের ঘটনায় মঙ্গলবার রাতেই বিদ্যাসাগর কলেজের পক্ষ থেকে আমহার্স্টস্ট্রিট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। দলীয় কর্মীদের মারধর করার অভিযোগে বিজেপির বিরুদ্ধে জোড়াসাঁকো থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে টিএমসিপিও। বুধবার, সকাল থেকেই এলাকা পরিষ্কারের কাজ চলছে। কলেজের আশপাশে বেশ কয়েকটি বাইক জ্বালানো হয়। এদিন সকালে সেই সব ধ্বংসস্তূপ সরানো হয়। মঙ্গলবার, সন্ধেয় হামলার পরেই বিদ্যাসাগর কলেজে যান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। জনসভা সেরে তারপর সেখানে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। উপস্থিত ছিলেন কলকাতা পুলিস কমিশনার।

কলেজ চত্বরে ছড়িয়ে থাকা বিদ্যাসাগরের ভাঙা মূর্তির টুকরো এক জায়গায় করেন মমতা। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী যাওয়ার অনেক আগে বিদ্যাসাগর কলেজে পুলিস পৌঁছলেও কেন ভাঙা মূর্তি সরানো হয়নি তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। রাতেই বিদ্যাসাগর কলেজ থেকে হেঁটে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে, এসবের কড়া সমালোচনা করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। পায়ের তলার মাটি সরছে বুঝতে পেরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নাটক করছেন বলে অভিযোগ বিজেপির।