পেন নিয়ে ঝগড়ার জেরে অষ্টমশ্রেণীর ছাত্রী খুন করল সহপাঠীকে!

0
277

সামান্য একটা পেন নিয়ে ঝগড়া দুই নাবালিকা ছাত্রীর। কিন্তু এর পরিণতি হল মর্মান্তিক। ঘটনায় শিউরে উঠলেন রাজস্থানের বড়লি গ্রামের মানুষ। বছর তেরোর ক্লাস এইটের এক ছাত্রী লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারলো বছর বারোর সহপাঠীকে। এখানেই শেষ নয়, দেহটি লুকিয়ে রেখে মাকে জানায় পুরো ঘটনা। ওই নাবালিকার মা, দেহ লোপাটের চেষ্টা করেন। রাতের অন্ধকারে শিশুটির দেহ গ্রামের বাইরে একটি পুকুরের ধরে ঝোপের মধ্যে ফেলেও দিয়ে আসে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ধরা পড়ে যায় দুজনেই। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, স্কুলেই পেন নিয়ে ঝগড়া হয়েছিল দুই ছাত্রীর। এরপর বাড়িতে ডেকে ১২ বছরের ওই ছাত্রীকে রড দিয়ে পিটিয়ে মেরে ১৩ বছরের সহপাঠী। শিশুটির ময়নাতদন্তে উঠে এসেছে মোট ১৯ বার আঘাত করেছে ওই নাবালিকা।

গত বুধবার থেকেই নিখোঁজ ছিল ক্লাস এইটের ছাত্রীটি। তবে ওই সহপাঠীর বাড়ি যাচ্ছি বলেই বেরিয়েছিল ওই ছাত্রী। নিখোঁজ নিয়ে পুরোপুরি অস্বীকার করেন ঘাতক ছাত্রীটির পরিবার। কিন্তু পুলিশের তল্লাশিতে ওই শিশুটির একটি কানের দুল পাওয়া যায় তাঁদের বাড়ি থেকে। এরপর কড়া জিজ্ঞাসাবাদ করলেই ভেঙে পড়েন ঘাতক নাবালিকার মা। স্বীকার করে নেয় খুনের। উদ্ধার হয় শিশুটির দেহ। জানা গিয়েছে,খুন করে প্রথমে ঘরের এক জায়গায় লুকিয়ে রাখে ওই নাবালিকা। পরে তাঁর মা, রাতের অন্ধকারে দেহটি লোপাট করার চেষ্টা করেন। এই ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সমাজতান্ত্রিকরা। হতবাক গোটা গ্রাম।