জিয়াগঞ্জ হত্যাকাণ্ডে এবার আটক বন্ধুপ্রকাশের বাবা

0
3459

মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল ও তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও ছেলেকে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্যকর মোড়। বন্ধুর পর এবার বন্ধুপ্রকাশের বাবাকেও আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ জানতে পেরেছে সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিনের টানাপোড়েন ছিল বাবা-ছেলের মধ্যে। সেই ব্যাপারে খতিয়ে দেখতেই বন্ধুপ্রকাশের বাবা অমর পালকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করছে পুলিশ। খুনের ঘটনার পরই বন্ধুপ্রকাশের মা পারিবারিক কলহের কথা স্বীকার করে তাঁর স্বামীর দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন। উল্লেখ্য, নিহত শিক্ষকের বাবা অমর পাল দ্বিতীয় বিয়ে করার পরই সম্পত্তি নিয়ে বিবাদ বাঁধে বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশের পাশাপাশি এদিন সিআইডির একটি দল জিয়াগঞ্জে ঘটনাস্থলে এসে তদন্ত শুরু করেছে। সিআইডির স্পেশাল সুপার ইন্দ্র চক্রবর্তীর নেতৃত্বে এক বিশেষ দল নিহত শিক্ষকের বাড়িতে যান। তাঁরা ঘটনাস্থল ঘুরে দেখে বিভিন্ন নমুনা সংগ্রহ করেছে। পাশাপাশি কয়েকজন রাজমিস্ত্রিকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইডির তদন্তকারী দল। ঘটনার দিন সেখানে রাজমিস্ত্রীরা কাজ করছিলেন বলে জানতে পেরেছে সিআইডি। দশমীর দিন খুন হয়েছিলেন বন্ধুপ্রকাশ পাল, তাঁর তাঁর অন্ত:স্বত্ত্বা স্ত্রী বিউটি ও ৬ বছরের ছেলে আর্য। সেদিন যারা যারা দেহগুলি দেখেছিলেন সিআইডির তদন্তকারীরা তাঁদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন এদিন। এছাড়া ওই বাড়িতে সিসিটিভি বসানোর জন্য এক মহিলাকে বলেছিলেন বন্ধুপ্রকাশ। কিন্তু সিসিটিভি লাগানো হয়নি বলেই জানতে পেরেছে সিআইডি। এদিন তাঁকেও ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।