প্রসঙ্গ ফিটনেস চ্যালেঞ্জ

0
47

প্রধানমন্ত্রীর চ্যালেঞ্জের পাল্টা জবাব দিলেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী। টুইট বার্তায় মোদির উদ্দেশে লেখেন, তাঁকে ফিটনেস নিয়ে চ্যালেঞ্জ জানানোয় সম্মানিত বোধ করছেন। যোগব্যায়াম তাঁরও প্রাত্যহিক রুটিনের অন্তর্গত। তবে এই মুহূর্তে তিনি নিজের নয়, কর্নাটকের স্বাস্থ্য নিয়েই বেশি উদ্বিগ্ন। যদি সেই ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা পাওয়া যায় সেটাই যথেষ্ট। প্রসঙ্গত, বুধবার নিজের শারীরিক অনুশীলনের ভিডিও পোস্ট করে কোহলির ফিটনেস চ্যালেঞ্জের জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর আগে ব্যায়ামরত একটি ভিডিওতে মোদিক চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েছিলেন বিরাট। যার উত্তরে দু মিনিটের একটু কম সময়ের একটি ভিডিও দেন মোদিও। বলেন, “এটা আমার সকালের এক্সারসাইজ। যোগ ছাড়াও আমি ট্র্যাকের ওপর হাঁটি পৃথ্বি, জল, অগ্নি, বায়ু ও আকাশ এই পঞ্চতত্ত্বে অনুপ্রাণিত হয়ে। এটা অত্যন্ত সতেজ করে। আমি শ্বাসের ব্যায়ামও করি।” এর পরেই প্রধানমন্ত্রী টেনিস খেলোয়াড় মনিকা বাত্রা, কর্নাটকের নয়া মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী এবং চল্লিশোর্ধ ভারতীয় পুলিশ অফিসারদের চ্যালেঞ্জ জানান। ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন রাঠোরই এই ফিটনেস চ্যালেঞ্জ শুরু করেছিলেন।