নোটবন্দির উদ্দেশ্য নোট বাজেয়াপ্ত নয়ঃ জেটলি

0
37

নোট বাজেয়াপ্ত করা নোটবন্দির উদ্দেশ্য ছিল না। নোটবাতিলের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির সাফাই। নোটবন্দির পর বাজারের প্রায় সব নোটই ব্যাঙ্কের জমা পড়ায় এই পদক্ষেপের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অর্থনীতি বিশেষজ্ঞ থেকে বিরোধীরা। তারই জবাবে জেটলি বৃহস্পতিবার ফেসবুকে যুক্তি দিয়েছেন, বাজারের টাকা অর্থনীতিতে নিয়ে আসাই ছিল উদ্দেশ্য। নগদ থেকে ডিজিটাল লেনদেনে নিয়ে আসতে এমন একটা ঝাঁকুনির প্রয়োজন ছিল। দুবছর আগে নোটবাতিলের পক্ষে এমন কোনও যুক্তি না দেখানো হলেও জেটলির কথায়, নোটবন্দির ফলে করভিত্তি আরও ব্যাপক হয়েছে। পরিকাঠামোয় বিনিয়োগ বেড়েছে। আয়করদাতার সংখ্যা ৬ কোটি হয়েছে। তাছাড়া, জিএসটির উপকার পেতে শুরু করেছে দেশ। দুবছর আগে বলা হয়েছিল কালো টাকা উদ্ধারের জন্যই ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল করা হচ্ছে।