কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা অ্যাপ ৩৫৫ ভারতীয়ের কাছে

0
27

ভারতের ৫ লাখ ৬০ হাজার ফেসবুক অ্যাকাউন্টের তথ্য ফাঁস হয়ে যেতে পারে বলে জানাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। সেইসঙ্গেই তারা জানাচ্ছে, কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার অ্যাপ ডাউনলোড করেছেন মাত্রই ৩৫৫ জন। কিন্তু তা দিয়েই ৫ লাখের তথ্য ফাঁস হয়েছে। একবার কেউ thisisyourdigitallife কুইজ অ্যাপটি নামালেই গ্লোবাল রিসার্চ লিমিটেডের হাতে চলে যায় সমস্ত তথ্য। অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম ইন্টারফেস বা সোশাল গ্রাফ ব্যবহারকারীর বন্ধুতালিকা থেকে শুরু করে ফেসবুক ব্যবহারকারীর যাবতীয় তথ্য যে কোনও অ্যাপেই পাওয়া যেতে পারে। আরেকভাবে ফাঁস হতে পারে। ব্যবহারকারীদের পাবলিক প্রোফাইল থাকলে সেটি সম্ভব। অ্যালগোরিদম ফ্রেন্ডস লিস্ট থেকে পাবলিক প্রোফাইল চেয়ে নেয়। তারপর তাদের অজ্ঞাতসারেই পরপর অ্যাকাউন্টে ঢুকে যায়। thisisyourdigitallife অ্যাপ ব্যবহারকারীদের সাইক্রোমেট্রিক প্রোফাইল তৈরি করা ছাড়াো তাদের রাজনৈতিক ঝোঁকও বের করে। তাদের ব্যক্তিত্ব পরীক্ষা করে তা শিক্ষাগত কাজে লাগাবে এই অ্যাপটি জানায়। কিন্তু আসলে সেটি ব্যবহারকারীদের অগোচরে তথ্য ফাঁসের হাতিয়ার। শুধু কেমব্রিজ অ্যালালিটিকাই নয়, আরও বহু সংস্থা এভাবেই তথ্যচুরি করছে।