এনআরসি ইস্যুতে ‘পোস্টকার্ড’ অভিযান বিজেপি মহিলা মোর্চার

0
312

এনআরসি নিয়ে বাংলায় আতঙ্ক ছড়াচ্ছে তৃণমূল, এমনটাই দাবি বিজেপি মহিলা মোর্চা নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের। তাই শাসকদলের রণনীতির পাল্টা দিতে আসরে নেমেছেন তিনি। এবার থেকে বিজেপির মহিলা মোর্চার সদস্যারা উদ্বাস্তু ও শরণার্থীদের কাছে পৌঁছে যাবেন। এনআরসি নিয়ে তাঁদের কথা ও প্রশ্ন পোস্টকার্ডের মাধ্যমে সংগ্রহ করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে বলে জানালেন লকেট চট্টোরাধ্যায়। বৃহস্পতিবার তিনি জলপাইগুড়ি শহর সংলগ্ন সারদাপল্লী এলাকায় যান এবং বেশ কয়েকটি পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। সেখানেই তাঁকে এনআরসি নিয়ে তাঁদের আতঙ্কের কথা জানতে পারেন বিজেপি সাংসদ। এরপরই তাঁর অভিযোগ, তৃণমূল সুপরিকল্পিতভাবে এনআরসি নিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করছে। তাই আমরা মানুষের কাছ থেকে পোস্টকার্ড সংগ্রহ করে তা পৌঁছে দেব প্রধানমন্ত্রীর কাছে। রাজ্যজুড়ে এই কর্মসূচf চলবে বলে জানিয়েছেন মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে জলপাইগুড়িতে এসেছিলেন লকেট। সেখানেই তিনি জানিয়ে দিলেন, খুব শীঘ্রই নাগরিকত্ব বিল পাস হবে, আর একজন হিন্দু শরণার্থীও এনআরসি থেকে বাদ যাবে না। একই কথা বিভিন্ন সময়ে বলেছেন অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্বও। এবার মানুষকে আশ্বাস দিয়ে সেই জমি আরও শক্ত করতে ‘পোস্টকার্ড’ সংগ্রহের অভিনব পন্থা নিল বিজেপি মহিলা মোর্চা। যাXরা এরাজ্যে শরণার্থী বা উদ্বাস্তু হিসেবে এসেছেন তাঁদের কাছে বিজেপি মহিলা মোর্চার আবেদন, দ্রুত নাগরিকত্ব বিল পাশ এবং তাঁদের নাগরিকত্ব প্রদানের দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে পোস্টকার্ড লিখুন। মহিলা মোর্চার সদস্যরা সেই পোস্টকার্ড বাড়ি বাড়ি গিয়ে সংগ্রহ করবেন এবং রাজ্যে নেতৃত্বের কাছে পৌঁছে দেবেন। রাজ্য নেতৃত্ব সেই কার্ড প্রধানমন্ত্রীর হাতে পৌঁছে দেবেন।