নদিয়ায় খুন হওয়া বিজেপি কর্মীর বাড়িতে মুকুল-অর্জুন

0
59

রবিবার দুষ্কৃতীদের হাতে খুন হন বিজেপি কর্মী খুন হন বছর পঞ্চান্নর আহমেদ শেখ। নদিয়া জেলার চাপড়া থানা এলাকার সুটিয়া গ্রামের এই ঘটনায় পুজোর মধ্যেই উত্তেজনা ছড়ায় এলাকাজুড়ে। নিহত আহমেদের পরিবারের দাবি, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাঁকে খুন করেছে। বুধবার নিহত আহমেদ শেখের পরিবারের পাশে গিয়ে দাঁড়ালেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় ও সাংসদ অর্জুন সিং। এই খুনের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসই জড়িত। এই অভিযোগ তুলে মুকুল রায় তিরে বিদ্ধ করলেন তেহট্টের তৃণমূল বিধায়ককেও। রাজ্য জুড়ে বিজেপি কর্মীদের উপর একের পর এক আক্রমণের ঘটনায় রাজ্যের তৃণমূল সরকার ও তৃণমূল নেত্রীর তীব্র সমালোচনা করেন মুকুল রায়। তাঁর কথায়, পুজোর কটা দিনেও রাজ্যে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের খুন হতে হচ্ছে। এটা নৈরাজ্যের রাজ্য হয়ে উঠেছে বলেই দাবি করেছেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। অপরদিকে নিহত বিজেপি কর্মীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে চাপড়া থানার পুলিশ মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। কিন্তু পুলিসের ভূমিকায় সন্তুষ্ট নন আহমেদের পরিবার ও স্থানীয় বাসিন্দারা। ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন মুকুল রায়ও। বুধবার মুকুল রায়, অর্জুন সিংরা যখন নিহত বিজেপি কর্মীর এলাকায় গিয়ে পৌঁছোন, তখন স্বতঃস্ফূর্তভাবে তাঁদের সাথ দেন স্থানীয়রা। সীমান্ত লাগোয়া এলাকার মানুষজনকে পাশে পেয়ে এনআরসি নিয়ে তাঁদের বিভ্রান্ত না হওয়ার পরামর্শ দেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।