জাগুয়ারকাণ্ডে নতুন মোড়, আরসালান নয়, গাড়ি চালাচ্ছিলেন তাঁর দাদা!

0
948

জাগুয়ার কাণ্ডে নয়া মোড়। দিন দুয়েক আগেই ঘটনার তদন্তভার যায় কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের হাতে। এরপরই তাঁদের হাতে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। বুধবার লালবাজারে কলকাতা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মুরলীধর শর্মা সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দেন, সেদিন গাড়ি চালাচ্ছিলেন রাঘিব পারভেজ। তিনি আরসালান পারভেজের দাদা। ফলে এই পাঁচদিন পরই বদলে গেল অভিযুক্ত, যাঁকে এই পাঁচদিন হেফাজতে রেখে তদন্ত করছিল পুলিশ তিনি সেদিন জাগুয়ারে ছিলেনই না। পুলিশের দাবি, ঘটনার রাতের ময়দান থেকে লাউডন স্ট্রিট ও শেক্সপিয়ার সরণীর মোড় পর্যন্ত প্রায় ৪৫টি সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ ভালো করে খতিয়ে দেখেন গোয়েন্দারা। পাশাপাশি আরসালানদের বাড়ির সবকটি সিসিটিভি ফুটেজও খতিয়ে দেখা হয়।

ভুল ভাঙে এরপরই। সেইসঙ্গে অত্যাধুনিক ও বিলাসবহুল এই জাগুয়ার গাড়িটিতে লাগানো ইনফোটেনমেন্ট ও টেলিমেট্রিক্স ডেটা পরীক্ষা করে জানা যায় ওদিন চালক রাঘিব পারভেজ। জাগুয়ারের বিশেষজ্ঞরা গাড়িটির ডেটা উদ্ধার করে একটি মোবাইল নম্বর পান। সেটির তথ্য হাতে আসার পরই গোয়েন্দারা নিশ্চিত হন সেই রাতে গাড়ি চালাচ্ছিলেন রাঘিব পারভেজ। পরদিনই তিনি দুবাই পালিয়ে যান। বুধবার কলকাতায় ফিরলেই বেনিয়াপুকুর এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সেই সঙ্গে কড়েয়ার বাসিন্দা রাঘিবের মামা মহম্মদ হামজাকেও পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তিনি রাঘিবকে দুবাই পালাতে সাহায্য করেছিলেন বলেই পুলিশের দাবি। তবে কেন আরসালান পারভেজকে এতদিন পুলিশ আটকে রাখল? উঠছে প্রশ্ন। তবে কি পুলিশের তদন্তেই গাফিলতি ছিল?