মাংখুট, ফ্লোরেন্সে বিপর্যস্ত আমেরিকা, ফিলিপিনস

0
108

ধেয়ে আসছে হারিকেন ফ্লোরেন্স। নদীগুলিকে ফুলিয়ে, বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত করে আমেরিকার উত্তর ক্যারোলিনার দিকে এগোচ্ছে এই প্রলয়ঙ্করী ঘূর্নিঝড়। একে ১ নম্বর ক্যাটেগরির ঝড় বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। ঢেউয়ের উচ্চতা হবে ১০ ফুট। শুক্রবারই ঝড়ের আছড়ে পড়ার কথা। ইতিমধ্যেই উপকূলে ঢেউ আছড়ে পড়ছে। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ১২ ইঞ্চি। উত্তর ক্যারোলিনা শহর জলমগ্ন। উপড়ে পড়েছে বহু গাছ। হাওয়ার গতি ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার। তবে এর তীব্রতা কয়েক গুণ বাড়বে, বলছেন আবহবিজ্ঞানীরা। এরই পাশাপাশি ফিলিপিনসে সুপার টাইফুন মাংখুটের আশঙ্কায় হাজার হাজার মানুষকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সবমিলিয়ে এই সামুদ্রিক ঝড়ের কবলে পড়তে চলেছেন উত্তর ফিলিপনসের ৪০ লাখ মানুষ। এই ঝড়কে ৫ নম্বর ক্যাটাগরির বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। সবমিলিয়ে পূর্ব ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশগুলিতে সতর্ক করা হয়েছে। দ্বিতীয় একটি ঘূর্নিঝড় বারিজাতেরও আছড়ে পড়ার কথা। হারিকেন ফ্লোরেন্সের থেকেও শক্তিশালী মাংখুট শনিবার ফিলিপিনসের লুজন দ্বীপে আছড়ে পড়বে। এখন তার গতিবেগ ঘণ্টায় ২৮৫ কিলোমিটার। প্রশান্ত মহাসাগরে গুয়াম ও মার্শাল দ্বীপকে ইতিমধ্যেই গুঁড়িয়ে দিয়েছে মাংখুট। সেখানে প্রবল বন্যা, বিদ্যুৎ নেই। বিচ্ছিন্ন যোগাযোগ ব্যবস্থা। ঝড়ের কেন্দ্র থেকে ১২৫ কিলোমিটার বৃত্তে ৪৩ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে সরকার জানিয়েছে। তৈরি রাখা হয়েছে ত্রাণের ব্যবস্থা।