অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় আমফান আছড়ে পড়েছিল গত বুধবার দুপুরে। এরপর কেটে গিয়েছে তিনদিন। তারপরও কলকাতার রাস্তায় রাস্তায় পড়ে রয়েছে গাছ। পাশাপাশি টেলিফোন ও বিদ্যুতের খুঁটি, সিগন্যাল পোস্ট রাস্তা থেকে সরানো হয়নি। ফলে পানীয় জল ও বিদ্যুৎ মিলছে না তিনদিন পরও। কলকাতা পুরসভার কর্মীরা দিন-রাত এক করে গাছ সরানোর কাজ করছেন। তবুও কাজ হয়নি অধিকাংশ এলাকায়। দাবি উঠছিল দ্রুত জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর জওয়ানদের নামানোর। অবশেষে কলকাতার রাস্তায় নামল এনডিআরএফ বাহিনী। আপাতত কলকাতার পাঁচটি এলাকায় কাজ শুরু করেছেন তাঁরা। প্রতিটি দলেই রয়েছেন ১৮ জন করে জওয়ান। এই জাতীয় বিপর্যয়ে তাঁদের উদ্ধারকাজ চালানোর অভিজ্ঞতা থাকায় দ্রুততার সঙ্গেই কাজ করতে পারে এনডিআরএফ। ফলে এনডিআরএফ টিম নামায় খুশি সাধারণ মানুষ।

 

প্রতিটি দলে একজন ইন্সপেক্টর ও একজন করে সাব ইন্সপেক্টর থাকছেন। তাঁদের নির্দেশেই বড়বড় গাছ অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতির সাহায্যে দ্রুত কেটে সরিয়ে ফেলছেন জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা। এনডিআরএফ দলের নেতার দাবি, দু-তিন দিনের মধ্যেই কলকাতার রাস্তা থেকে গাছ ও ইলেকট্রিক পোল সরিয়ে ফেলা সম্ভব।