মহুয়া কেবল মাতালই করে না, অন্য কাজেও দেয়। ছত্তিশগড়ের এর ব্যক্তি মহুয়ার ফুল থেকে তৈরি করে ফেলেছেন হ্যান্ড স্যানিটাইজার। মহিলাদের এক স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সহযোগিতায় এই স্যানিটাইজার বানিয়েছেন মহুয়ার অ্যালকোহল দিয়ে।
করোনা মোকাবিলায় এখন হ্যান্ড স্যানিটাইজারের চাহিদা তুঙ্গে। গরমে হলুদ মহুয়া ফুল খুব বেশি হয় জঙ্গলে। তাতে মেডিকেল কিছু উপাদানও রয়েছে। ওই উদ্যোগী সমর্থ জৈন জানিয়েছেন, তাঁর পেট্রোল পাম্পের কর্মচারীদের জন্য যথেষ্ট স্যানিটাইজার না থাকায় তাঁর এই আইডিয়া মাথায় এসেছে। যশপুরে প্রচুর মহয়া ফুল হয়। সেই ফুল দিয়ে আদিবাসীরা বানান দেশি মদ। সেই মদকে আরও পরিশুদ্ধ করে স্যানিটাইটার বানানো হচ্ছে।
জেলা প্রশাসন ও বনবিভাগের সম্মতির পর স্বনির্ভর গোষ্ঠীকে কাজে লাগানো হয়। তিনদিনের মধ্যে তৈরি হয়ে যায় নমুনা। বনবিভাগ কাঁচা মাল জোগাড় করে দিয়েছে। তারপর ট্রায়াল হিসেবে ৩০ লিটার স্যানিটাইজার তৈরি করা হয়। তারপর তা ভরা হয়েছে ১০০ মিলি লিটারের বোতলে। বিলি করা হয়েছে পুলিশকর্মীদের মধ্যে।এখন লাইসেন্স হাতে পাওয়ার অপেক্ষা।
যশপুরের জেলাশাসক জানিয়েছেন, মহুয়ার স্যানিটাইটার পুরোটাই জৈবিক এবং তার কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুসারেই তা ঠিক আছে।