ব্যাপক সাড়া ফেলেছে সিকিমের ‘এক পরিবার, একটি সরকারি চাকরি’। গত বছরের শীতকালীন অধিবেশনেই সিকিমের বিধানসভায় বিলটি আনা হয়। শনিবারেই এই প্রকল্পের সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী পবন চামলিং। শনিবার সিকিমের পালজোর স্টুডিয়ামে ১২ হাজার বেকার যুবকের হাতে সরকারি চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হয়। তবে প্রথম ধাপে, সেসব পরিবারকেই বেছে নেওয়া হয়েছে, যাদের কোনও সরকারি চাকুরিজীবী সদস্য নেই। মুখ্যমন্ত্রী সেখানে আরও ঘোষণা করেন, প্রায় ২৫ হাজার অস্থায়ী কর্মচারী আগেও নিয়োগ করা হয়েছিল। ২০১৯ সালের মধ্যেই তাঁদেরকেও স্থায়ীকরণ হয়ে যাবে। প্রসঙ্গত, একমাত্র সিকিমেরই রাজ্য সরকারের কর্মীরা সবচেয়ে বেশি মাইনে পান।