মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ শুক্রবার বিকেলে পদত্যাগ করলেন। রাজ্যপাল ভগত সিং কোশিয়ারি সঙ্গে দেখা করে ফড়নবিশ ও তাঁর মন্ত্রীরা পদত্যাগপত্র জমা দেন। এরই পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রিত্ব নিয়ে শিবসেনার সঙ্গে বিজেপির কোনও চুক্তি হয়নি বলে জানিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গদকরি। ফলে পরিষ্কার, দুই জোটসঙ্গীর বিরোধ মেটার কোনও লক্ষণ এখনও নেই। এদিকে, শুক্রবার রাত বারোটাতেই শেষ হচ্ছে মহারাষ্ট্র বিধানসভার মেয়াদ। নির্বাচনের ফল ঘোষণার ১৫ দিন পরেও সরকার গড়া নিয়ে বিজেপি-শিবসেনা বিরোধ মেটেনি। ৫০-৫০ চুক্তি থেকে সরে আসতে নারাজ শিবসেনা। তা মানতে অস্বীকার করেছে বিজেপি। শিবসেনার সাফ কথা, তাদের ৫০-৫০ ফর্মুলা না মানলে কোনও ফয়সালা হবে না। অন্যদিকে, শিবসেনার পর এবার বিজেপির বিধায়ক কেনার প্রলোভন থেকে দলের বিধায়কদের জয়পুরের একটি রিসর্টে নিয়ে গিয়েছে কংগ্রেসও। এর আগে শিবসেনার বিধায়কদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে মুম্বইয়ের একটি হোটেলে। একটি সূত্রের মতে, শুক্রবারই পদত্যাগপত্র পেশ করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। এই টানাপোড়েন থেকে আগেই নিজেদের সরিয়ে নিয়েছেন এনসিপির শারদ পাওয়ার। তাঁরা বিরোধী বেঞ্চেই বসবেন।