গত ১২ ঘণ্টায় দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০৯। রবিবার তা ছিল ৮৩। আক্রান্ত ১২ ঘণ্টায় বেড়েছে ৪৯০ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের হিসেবে, মোট আক্রান্ত ৪,০৬৭। সুস্থ হয়েছেন ২৯২ জন। এ নিয়ে পরপর চারদিন দেশে পাঁচশোরও বেশি সংক্রমণের খবর এল। তবে এর ৩০ শতাংশই দিল্লির নিজামুদ্দিনের তবলিঘি জামাতের জমায়েতের সঙ্গে জড়িত। সংক্রমণের তালিকায় সবার উপরে মহারাষ্ট্র, তারপর তামিলনাড়ু ও দিল্লি। স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, প্রতি ৪.১ দিনে করোনা সংক্রমণ দ্বিগুণ হচ্ছে। এদিনই রাঁচির হিন্দপিড়িতে এক মহিলার করোনা সংক্রমণের খবর এসেছে। রাজ্যে পজিটিভের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪। অন্যদিকে, গত এক সপ্তাহে মুম্বইয়ের ওকহার্ট হাসপাতালের ২৬ জন নার্স ও ৩ জন ডাক্তারের সংক্রমণ ধরা পড়ার পর মুম্বই পুরসভা গোটা হাসাপাতালকেই অবরুদ্ধ করেছে। ওই হাসপাতালে ৩০ জন রোগীর সংক্রমণ ছিল।