দেশে বাড়ানো হবে লকডাউনের মেয়াদ। করোনা ভাইরাসের মারণ থাবার হাত থেকে বাঁচতে কীভাবে ধাপে ধাপে বাড়ানো হবে লকডাউনের মেয়াদ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (WHO) তরফে জানানো হয়েছে। এমনই এক ভুয়ো সার্কুলার ছড়িয়ে পড়েছে সোশাল মিডিয়ায়। করোনা ভাইরাসের কারণে দেশে লকডাউন কতদিন চলবে তার সম্পূর্ণ শিডিউল সবিস্তারে দেওয়া রয়েছে ওই নির্দেশিকায়। দাবি করা হচ্ছে এই নির্দেশিকা বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা জারি করেছে। সোমবার এই ভুয়ো সার্কুলার নিয়ে মুখ খুলল কেন্দ্রীয় সরকার। ভারতের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো বা পিআইবি এদিন ট্যুইট করে জানিয়ে দিয়েছে সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া হু-র নির্দেশিকা ভিত্তিহীন। পিআইবি-র বিশেষ ফ্যাক্ট চেক টিম সোশাল মিডিয়ার পোস্টটি নিয়ে তদন্ত শুরু করে। তখনই তাঁরা দেখতে পান, এটি সম্পূর্ণ ভুয়ো। ফলে পিআইবি জানিয়ে দিল, ‘দাবি: হু-র সার্কুলার বলে যেটি হোয়াটসঅ্যাপে ছড়াচ্ছে, তাতে বলা হয়েছে যে তারা একটি লকডাউনের শিডিউল জারি করেছে। সেই সার্কুলার ভুয়ো’। যদিও আগেই হু-র তরফে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার একটি ট্যুইটার অ্যাকাউন্টেও একই দাবি করা হয়েছিল। উল্লেখ্য, কেন্দ্রের তরফে বারবার দাবি করা হচ্ছে লকডাউনের সময়সীমা নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি সরকার। প্রধানমন্ত্রী প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা, বিরোধী দলের নেতা-নেত্রীদের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে আলোচনা করছেন লকডাউন পরিবর্তী পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার রাস্তা খুঁজতে। এরই মধ্যে সোশাল মিডিয়ায় নানা ধরনের ভুয়ো বার্তা ছড়িয়ে পড়ছে। ফলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে সাধারণ মানুষের মনে। এবার কেন্দ্রের তরফে এই ভুয়ো পোস্ট নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া শুরু হয়েছে।