একটি বহুতলের লিফটে আটকে পড়েছেন ৬ জন। বাড়িটির লোকজন করোনায় আক্রান্ত। আটকে পড়া লোকজনের মধ্যে এক চিনা মহিলা কাশছেন। সবাই ধরে নিয়েছেন, তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। লিফটে রয়েছেন এক গর্ভবতী মহিলা, হুইল চেয়ারে বসা এক নাৎসি, যার কপালে রয়েছে স্বস্তিকার ট্যাটু। দ্রুত সবার মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে আতঙ্ক। লকডাউনের আগে শেষ হওয়া ফিল্মটির ৮ মার্চ মুক্তি পাওয়া ট্রেলারে রয়েছে শুধু এটুকুই। করোনাভাইরাসকে কেন্দ্র করে তৈরি হচ্ছে কানাডার থ্রিলার করোনা। ছবিটির স্লোগান ‘ফিয়ার ইজ আ ভাইরাস’ বা আতঙ্ক একটি ভাইরাস। কানাডিয়ান-পার্সিয়ান নির্মাতা মোস্তফা কেশভরির এ ছবিতে লিফটে আটকে পড়া কিছু মানুষের মধ্য দিয়ে এ সময়ে ভয়ঙ্কর স্নায়ুচাপ ও অন্যান্য পারিপার্শ্বিক পরিস্থতি উঠে এসেছে। এসেছে বর্ণবাদের মতো বিষয়ও। তবে ছবিটির মুক্তি পাবে, সে বিষয়ে কোনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয়নি। ছবিটি যাতে বাস্তব মনে হয়, সে জন্য ক্যামেরা হাতে কেবল সিঙ্গল টেকেই ফিল্মটি তোলা হয়েছে। নির্মাতার ভাষায়, প্রথমে এ ভাইরাস চিনে আঘাত হানলেও এখন তা সারা দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে। এখন সম্মিলিতভাবে এ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে হবে। যখন ভাইরাসটি আক্রমণ করার বেলায় কোনও বৈষম্য করছে না, সেখানে আমরা কেন নিজেদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করছি?