অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গেল ইউরোপের দুটি সর্বোচ্চ ফুটবল লিগ। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ক্রমশ থাবা বসাচ্ছে গোটা ইউরোপেই। ইতালি, স্পেন, পর্তুগাল ছাড়িয়ে অন্যান্য দেশেও করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে প্রথম সারির দুটি ফুটবল লিগের বাকি ম্যাচ পিছিয়ে দেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না ইউরোপের ফুটবল সংস্থা উয়েফার। উয়েফা আরও জানিয়েছে, আগামী জুন মাস পর্যন্ত ইউরোপের সমস্ত ফুটবাল ম্যাচ বন্ধ থাকবে। এই সময় ইউরো কাপের যোগ্যতা নির্নয়কারী বেশ কয়েকটি ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। করোনার জেরে এর আগেই একবছর পিছিয়েছে ইউরো কাপ। মে মাসে হওয়ার কথা ছিল উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স ও উইরোপা লিগের ফাইনাল ম্যাচ। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে উয়েফা প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার সেফেরিন জানিয়ে দিয়েছিলেন, জুন মাসের শেষ সপ্তাহে খেলা শুরু না করা গেলে মরশুম পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হতে পারে। তবে বুধবারই ইউরোপের ৫৫টি দেশের ফুটবল কর্তারা ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনায় বসেন। জানা যাচ্ছে, সেখানে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত কিছু হয়নি। আগামীদিনে পরিস্থিতি উন্নতি হলে ম্যাচগুলির আয়োজন হবে। না হলে টুর্নামেন্ট বাতিল করে দেওয়া হবে। তবে এটাও জানা গিয়েছে, ইউরোপিয়ান ক্লাব কম্পিটিশনের সেরা চারটি দল নিয়ে একটা মিনি টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে পারে উয়েফা। অপরদিকে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম বাতিল হয়ে গেল ঐতিহ্যবাহী টেনিস টুর্নামেন্ট উইম্বলডন ২০২০। করোনা পরিস্থিতির জেরেই উইম্বলডন বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তাঁরা জানিয়ে দিয়েছে, ২০২১ সালের ২৮ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত হবে ঐতিহ্যবাহী এই টেনিস টুর্নামেন্ট।